জিজ্ঞাসা

বাইবেলে দেয়া আকৃতি অনুসারে নোহের জাহাজে কি করে এতগুলো প্রাণী প্রবেশ করল?

আদিপুস্তকে নোহের জাহাজের আয়তন ৩০০ হাত লম্বা, ৫০ হাত চওড়া এবং ৩০ হাত উচু (আদি ৬:১৫)। যেহেতু এটি প্রায় ৪০০০ বছর আগের ঘটনা, তাই সেই সময়ের মানুষের আকৃতির কথাও আমাদের চিন্তা করতে হবে। মিশরীয় মমি দেখে জানা যায় যে কয়েক হাজার বছর আগেও মানুষের হাতের আকৃতি প্রায় ১৭-২২ ইঞ্চির মত ছিল। তাই নোহের সময়ে এর চাইতেও বেশি হওয়াটা খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু আমরা যদি ২২ ইঞ্চিও ধরে নেই তাহলে হিসাব করলে এরকম দাড়ায়ঃ
৩০০ x ২২ ইঞ্চি = ৬,৬০০,
৫০ x ২২ ইঞ্চি = ১,১০০,
৩০ x ২২ ইঞ্চি = ৬৬০
৬,৬০০ ÷ ১২ = ৫৫০ ফুট,
১১০০ ÷ ১২ = ৯১.৭ ফুট,
৬৬০ ÷ ১২ = ৫৫ ফুট।
৫৫০ x ৯১.৭ x ৫৫ = ২৭,৭৩,৯২৫ বর্গফুট।

এমনকি আমরা যদি হাতের মাপ সর্বনিম্ন ১৭ ইঞ্চিও হিসাব করি তবুও ১২,৭৮,৯২৫ বর্গফুট হয়। এছাড়াও জাহাজটি ছিল তিনতলা (আদি ৬:১৬) এবং এতে বিভিন্ন কক্ষ ছিল (আদি ৬:১৪)। তাই আমরা যদি কক্ষ তৈরির দেয়াল বা অন্য সব কাজে ব্যবহৃত জায়গার হিসাব বাদ দেই তবুও কমপক্ষে ৫৪.৭৫% জায়গা বাকি থাকে, যেখানে প্রায় ১,২৫,০০০ ভেড়ার সমান পশু রাখা সম্ভব।

নোহের জাহাজ নিয়ে লেখা “Noah’s Ark: A Feasibility Study” বইটিতে লেখক জন উডমোরাফ দেখিয়েছেন যে, জাহাজটির প্রায় ১৫% পশু ভেড়ার চাইতে বড় আকারের ছিল। উডমোরাফ এটাও বলেছেন যে, সব পশুই যে প্রাপ্ত বয়স্ক ছিল সে ধারনা করা ঠিক নয়, কারণ অল্প বয়স্ক পশুরা তুলনামূলকভাবে কঠিন পরিবেশে নিজেদেরকে ভালভাবে মানিয়ে নিতে বেশি সক্ষম। তাই এদের আকৃতিও ছোট হওয়াটা সাভাবিক।
জন উডমোরাফ তার বইতে লিখেছেন জাহাজে প্রায় ১৬,০০০ জাতের পশু-পাখী নেয়া হয়েছিল। বাইবেলের এই “জাত” কে তার বইতে আরও বিস্তারিতভাবে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। এই হিসাব অনুসারে প্রত্যেকটির এক জোড়া ও সুচি পশু-পাখি সাত জোড়া হিসাব করলে জাহাজে সর্বোচ্চ ৪০,০০০টির মত পশু-পাখি নেয়া হয়েছিল, যা জাহাজের সর্বোচ্চ ধারণ ক্ষমতার চাইতে অনেক কম। অনেকে আবার বাইবেলের এই জাত-কে প্রজাতি বলে ব্যাখ্যা করে, যেমন কুকুরের শুধুমাত্র কুকুরেরই প্রায় ৪০০টি প্রজাতি রয়েছে। যদিও জাত এবং প্রজাতি দুইটি ভিন্ন বিষয়, তবুও জীববিজ্ঞান অনুসারে পাখী, সরিসৃপ এবং স্তন্যপায়ী প্রাণীদের সর্বোমোট প্রজাতি ১৭,৬০০ এর মত। অর্থাৎ সব প্রজাতির জোড়া এবং সুচি প্রজাতির সাত জোড়া হিসাব করলেও ৫০,০০০ এর বেশি হয় না।

অনেকে আবার দাবি করেন যে মোট প্রজাতির সংখ্যা প্রায় ২৫,০০০ এর মত। কিন্তু পশু-পাখির প্রজাতি ১৬,০০০ হোক বা ২৫,০০০ হোক, বাইবেলের হিসাব অনুসারে এই পরিমান পশু-পাখী নোহের জাহাজে ওঠার পরও সেই জায়গা খালি থাকে, যা খাবার, পানি ও অন্যান্য জিনিষ রাখার জন্য যথেষ্ঠ।
এছাড়াও নোহের জাহাজ নিয়ে আরও প্রশ্ন থাকতে পারে, যেমনঃ মাত্র আট জন কিভাবে এত পশু-পাখীর দেখাশোনা করত? এত বর্জ্য কিভাবে পরিষ্কার করত? আলাদা আলাদা প্রাণীর জন্য আলাদা আলাদা খাবার কিভাবে সংরক্ষন করা হয়েছে? এরকম হাজারো প্রশ্ন রয়েছে। এরকম প্রশ্ন করা কখনই খারাপ নয়। বরং বাইবেলের প্রতি আমাদের বিশ্বাসকে আরও শক্তিশালী করতে এরকম প্রশ্নের উত্তর জানা আমাদের জন্য জরুরী। এসবের পেছনে যথেষ্ট গবেষণা হয়েছে এবং এর সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা পাওয়া গেছে। তার মধ্যে জন উডমোরাফের বইটি উল্লেখযোগ্য (http://www.icr.org/pubs/imp/imp-273.htm)।

রেডিও