প্রবন্ধ

কাল্ট

বর্তমান সময়ে এই শব্দটি আমরা প্রায়শই শুনে থাকি। একজন ভাল খ্রীষ্টিয়ান বিশ্বাসী হিসাবে আমাদের এটি সম্পর্কে অবগত হওয়া প্রয়োজন। বাইবেল বলে শেষ সময়ে অনেক ভন্ড লোকেরা এসে অনেককে ঠকাবে (মথি ২৪)। এজন্য আমাদের এই সময় সতর্কতার সহিত জীবন যাপন করা উচিত।

তবে কোন ডিনোমিনেশনস্ সঠিক এবং কোনটি কাল্ট এটি মূল্যায়ন করা একদিকে সহজ আবার কখনও কখনও কঠিন। কারণ এই কাল্ট দলগুলি বাইবেলের পদ ব্যবহার করেই এমনভাবে শিক্ষা দেয় যাতে করে উপর দিক দিয়ে মনে হয় তারা বাইবেল সম্মত কথাই বলছেন। কিন্তু কেউ বাইবেলের পদ ব্যবহার করলেই তিনি যা বলছেন তা যে বাইবেল সম্মত তা নাও হতে পারে। শয়তানও বাইবেল জানে এবং যীশু খ্রীষ্টের পরীক্ষার সময় বাইবেলের পদ ব্যবহার করেছিলেন যা ছিল প্রেক্ষাপট অনুযায়ী বাইবেলের ভুল প্রয়োগ। যীশু খ্রীষ্ট তিনি বাক্য জানতেন বলেই শয়তানের চালাকি বুঝতে পেরেছিলেন এবং প্রতিরোধ করতে পেরেছিলেন। বাইবেলের সাথে গভীর সম্পর্কই আমাদেরকে এই সব প্রতারণা থেকে দূরে থাকতে সাহায্য করে।

কাল্ট না ভাল ডিনোমিনেশন কিভাবে বুঝব?
সাধারণত খ্রীষ্টিয়ান সম্প্রদায়গুলির বা ডিনোমিনেশনগুলির মধ্যে মূল খ্রীষ্টিয় মতবাদের কিছু কিছু পার্থক্য রয়েছে। কোন কোন ডিনোমিনেশন কোন কোন মতবাদকে প্রাধান্য দেয় আবার কোন কোন ডিনোমিনেশনস্ সেগুলিকে প্রাধাণ্য দেয় না। কিন্তু কিছু কিছু মূল মতবাদ সবগুলি ডিনোমিনেশনস্ এর মতবাদেই পাওয়া যাবে। এবং বর্তমান বিশ্বের বেশীরভাগ বড় বড় ডিনোমিনেশনস্ বা সম্প্রদায় এর সাথে একমত হবেন। যেমন নিম্নের প্রধান প্রধান মতবাদগুলি সবধরনের বড় বড় ডিনোমিনেশনস্ এর মতবাদে পাওয়া যাবে:

(যীশুখ্রীষ্ট, ত্রিত্ব ঈশ্বর, যীশু খ্রীষ্টের মৃত্যু, পরিত্রাণ, স্বর্গারোহন ও পুনরাগমন)

খ্রীষ্টিয়ান ধর্মের প্রধান প্রধান ধর্মবিশ্বাস: ( ডিনোমিনেশনস্ ভেদে কথার ভিন্নতা থাকতে পারে)
১. যীশু খ্রীষ্টকে ঈশ্বর ও প্রভু বলে স্বীকার করা, এবং তাঁর রক্তের মাধ্যমে পাপের ক্ষমা অর্থাৎ পরিত্রাণ পাওয়া যায় তাতে বিশ্বাস।
২. পিতা পুত্র ও পবিত্র আত্মার উপর বিশ্বাস, অর্থাৎ ত্রিত্ব ঈশ্বরে বিশ্বাস।
৩. যীশু খ্রীষ্টের মৃত্যু, পূনুরত্থান ও পুনরাগমন স্বীকার ও বিশ্বাস।

(কি কাথলিক বা প্রটেষ্ট্যান্ট যারা নিজেদেরকে খ্রীষ্টিয়ান বলে দাবি করেন তাদের সকলেরই এই মতবাদগুলি রয়েছে।)

এছাড়া প্রত্যেক ডিনোমিনেশনস্ এরই নিজস্ব আরও মতবাদ রয়েছে। কিন্তু উপরোক্ত মতবাদগুলি সমস্ত বড় খ্রীষ্টিয়ান ডিনোমিনেশনস্ গুলিই মেনে নেয় ও বিশ্বাস করে।

কাল্ট প্রধানত কয়েক প্রকার:
•    ধর্মীয় সম্প্রদায়ের কাল্ট: নিজেদেরকে ধর্মীয় সম্প্রদায়ের অথীন বলে আখ্যায়িত করে কিন্তু প্রধান ধর্মীয় মতবাদগুলি মেনে নেয়না, ভুল ব্যাখ্যা দেয় বা বিকৃত করে।
•    কোন বিশেষ নীতিমালার কাল্ট: নিজেদেরকে কোন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের লোক বলে না কিন্তু কিছু কিছু নীতিমালা অনুসরণ করে জীবন যাপন করে যা বাইবেলীয় নয়।
•    কোন বিশেষ ব্যক্তি বা ব্যক্তির মতবাদ কেন্দ্রিক কাল্ট: কোন মানুষকে ঈশ্বরের সমতূল্য দিয়ে আরাধনা করে।
•    যাদুবিদ্যা, মন্ত্রতন্ত্র, ব্রেইন ওয়াশ

কোন কোন কাল্ট দল রয়েছেন যারা নিজেদেরকে কোন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের লোক বলেন কিন্তু তারা এই প্রধান মতবাদগুলিকে মেনে নেন না বা বিকৃত করেন এবং সেজন্য তাদের মতবাদগুলি এতটাই ভিন্ন যে এদেরকে আর সেই ধর্মীয় সম্প্রদায়ের লোক বলে মেনে নেওয়া যায় না।

যেমন কিছু কিছু  ধর্মীয় কাল্ট দলের বিশ্বাস হচ্ছে:

১. যীশু খ্রীষ্ট তিনি সৃষ্টি হয়েছেন বা ঈশ্বর নন বা তিনি একজন বিশেষ স্বর্গদূত বা তিনি মারা যাননি, তিনি প্রভু নন ইত্যাদি ইত্যাদি। বেশীরভাগ কাল্ট দলগুলিরই যীশু খ্রীষ্ট সম্পর্কিত মতবাদে বিভ্রান্তি রয়েছে। কোন কোন কাল্ট গ্রুপের নেতাদের মধ্যে অনেকে আবার ইতিমধ্যে নিজেকে যীশু খ্রীষ্ট বলে দাবি করছেন যাদের অনেকে ইতিমধ্যে মারা গেছেন। (বর্তমানে বিভিন্ন দেশে অনেকে রয়েছেন যারা দাবি করেন তারাই যীশু খ্রীষ্ট)

২. ত্র্বিত্ব ঈশ্বরে অবিশ্বাস। কেউ কেউ বলেন পিতা ঈশ্বর কিন্তু পুত্র ঈশ্বর নন। কেউ বলেন পুত্রই একমাত্র ঈশ্বর আর কোন ঈশ্বর নেই বা পিতা ও পবিত্র আত্মা পুত্র ঈশ্বরের বিভিন্ন রূপ। কেউ বলেন পবিত্র আত্মা হচ্ছেন ঈশ্বরের আত্মা কিন্তু ঈশ্বর নন। এর কোনটিই সঠিক নয়।

এছাড়া আর যে যে ভাবে আমরা কাল্ট দলগুলি চিহ্নিত করতে পারব তা হচ্ছে:
১. সেই সম্প্রদায়ের নেতা বা লোকেরা নিজেদেরকে অতিমানব মনে করেন বেশীরভাগ ক্ষেত্রে নিজেকে ঈশ্বর বলে দাবি করেন।
২. পৃথিবীর সবকিছুকে ভুল বা খারাপ হিসাবে চিহ্নিত করা এবং সেজন্য পৃথিবীর সমস্ত সুযোগ সুবিধা না নেওয়া বা যত্ন না নেওয়া বা পৃথিবীর সম্পদ কিছুকে শয়তানের বলে আখ্যা দেওয়া যা বাইবেলের শিক্ষার বিপরীত।
৩. শুধুমাত্র দলীয় নেতা এমন কিছু জানেন যা অন্য কোন মানুষ পৃথিবীর জানেনা। অথাৎ সেই সম্প্রদায়ের প্রধান নেতা সবার চেয়ে আলাদা ও ক্ষমতাপূর্ণ।
৪. বিবাহের বাইরে যৌন সম্পর্ককে উৎসাহিত করা বা দলীয় নেতার সহিত বা দলের সদস্যদেরএক অন্যের সাথে অবাধ যৌন সম্পর্ককে উৎসাহিত করা।
৫. যে কোন রকম মূর্ত্তিপূজাকে (কোন মূর্ত্তিকে সরাসরি ঈশ্বর বলে মনে করে) উৎসাহিত করা বা দলের প্রধানকে ঈশ্বরের সমতূল্য হিসাবে পূজা করা।

আমাদের করণীয়:

  • আপনি যাদি এরূপ কোন দলের সাথে যুক্ত থাকেন তবে এখনই কোন ভাল বিশ্বাসী দলের সাথে যুক্ত হোন অথবা ভাল কোন মন্ডলীর সাথে সহভাগিতা দেওয়া শুরু করুন।
  • ঈশ্বরের বাক্য অর্থাৎ বাইবেলের সাথে গভীর সম্পর্ক গড়ে তুলুন। নিজে বাইবেল পড়ুন ও অধ্যয়ন করুন এবং যদি আপনার ব্যক্তিগত বাইবেলের ভিত্তি দুর্বল হয় তবে অতি স্বত্তর কোন ভাল বাইবেল অধ্যায়ন দলের সাথে বা কোন প্রতিষ্ঠীত মন্ডলীর বাইবেল অধ্যয়ন দলের সাথে যক্ত হোন।
  • কেউ কোন নতুন মতবাদ দিলে সংগে সংগে বাইবেলের বিভিন্ন অংশের সাথে তার সমঞ্জস্যতা পরীক্ষা করুন। আপনি নিজে না পাড়লে কয়েকজন প্রতিষ্ঠীত পালকের সাহায্য নিন।
  • কোন কাল্ট গুপের ব্যাপারে আপনি জানলে আপনার পরিবার পরিজন ও বন্ধুদের সতর্ক করুন।
  • ঈশ্বরের সাথে আপনার ব্যক্তিগত সম্পর্ক প্রার্থনা, বাইবেল অধ্যয়ন, নীরবধ্যান, ভাল সহভাগিতার মাধ্যমে বৃদ্ধি করুন। আপনি অজ্ঞ এবং একা থাকলে ভুল করার সম্ভাবনা বেশী থাকে।

প্রস্তুতকারী:
রিচার্ড হালদার

আরও জানতে বা এ সম্পর্কে যোগাযোগ করতে পারেন:
richhalder@gmail.com

তথ্য সূত্র:
http://newapologia.com/what-cult/

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখতে এখানে ক্লিক করুন

ক্রাইষ্টবিডি রেডিও